শনিবর, ২২ জু ২০২৪, সময় : ১২:৩৮ pm

সংবাদ শিরোনাম ::
পুলিশকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশ, তীব্র প্রতিবাদ বিপিএসএর মোদির আমন্ত্রণে দিল্লির উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী নাচোল সোনালী অতীত ফুটবল টুর্নামেন্টের সমাপনী ও ক্রেস্ট বিতরণ ঢাকাস্থ্য নাচোল উপজেলা সমিতি সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় নাচোলে মেধাবী শিক্ষার্থী ও অসচ্ছল ভ্যানচালকের মাঝে চেক বিতরণ সড়ক দুর্ঘটনায় মোহনপুরে এনজিও কর্মী নিহত রাসেল’স ভাইপার : গুজব সত্যের চেয়ে ঝোড়োবেগে চলে! নাচোলে হত্যা মামলার আসামির আত্মহত্যা পবায় বয়স বাড়িয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত পপি, তদন্ত কমিটি গঠন নগরীতে কিছুটা বেড়েছে গরুর চামড়ার দাম, ছাগলের বিক্রি হয়নি দীর্ঘদিন ব্যবহারে ওয়াই-ফাইয়ের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে বের করবেন যেভাবে নানা উদ্যোগে নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না ভেজাল ওষুধ উখিয়ায় পাহাড়ধসে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৯ জনের মৃত্যু নওগাঁর নিয়ামতপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত সমলিঙ্গ বিয়ের অনুমতি দিলো থাইল্যান্ডের পার্লামেন্ট আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে তানজিম সাকিবকে আইসিসির জরিমানা রাজধানীতে টিকিট না পেয়ে মধুমিতা হলে ভাঙচুর পুলিশের আরেক সাবেক কর্মকর্তার দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক? পুঠিয়ায় ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি অসীম সাহা আর নেই
খাওয়ার সময় কি সালাম দেওয়া যাবে? লেখক, বেলায়েত হুসাইন

খাওয়ার সময় কি সালাম দেওয়া যাবে? লেখক, বেলায়েত হুসাইন

সালাম আরবি শব্দ। এর অর্থ শান্তি, প্রশান্তি, কল্যাণ, দোয়া, শুভকামনা ইত্যাদি। সালাম একটি সম্মানজনক, অভ্যর্থনামূলক ও অভিনন্দনজ্ঞাপক ইসলামি অভিবাদন। একইসঙ্গে সালাম শান্তির প্রতীকও। মুসলমানরা সালামের মাধ্যমে নিরাপত্তা ও শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দেয়। এক মুসলিম অপর মুসলিমকে সালাম দেওয়া সুন্নত। আর সালামের উত্তর দেওয়া ওয়াজিব। সালাম দেওয়া-নেওয়া জান্নাতি মানুষের অভ্যাস। মুসলিমরা জান্নাতে যাওয়ার সময় ফেরেশতারা বলবে, ‘তোমাদের প্রতি সালাম’, তোমরা সুখী হও।’ (সুরা জুমার, আয়াত : ৭৩)।

ইসলামে সালামের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অনেক। পবিত্র কোরআনে আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘আর যখন তোমাদেরকে সালাম দেওয়া হবে, তখন তোমরা তার চেয়ে উত্তম সালাম দেবে। অথবা জবাবে তাই দেবে।’ (সুরা নিসা, আয়াত : ৮৬)।

সালামের প্রতি গুরুত্বারোপ করে মহান আল্লাহ আরও বলেন, ‘হে মুমিনগণ! তোমরা নিজেদের ঘর ছাড়া অন্য ঘরে প্রবেশ করো না, যে পর্যন্ত আলাপ-পরিচয় না করো এবং গৃহবাসীদের সালাম না করো। এটাই তোমাদের জন্য উত্তম, যাতে তোমরা স্মরণ রাখো।’ (সুরা নুর, আয়াত : ২৭)।

আমরা ‘আসসালামু আলাইকুম’ বলে সালাম দিয়ে থাকি। এর মানে, আপনার ওপর শান্তি বর্ষিত হোক। এর উত্তরে বলা হয়, ওয়া আলাইকুমুস সালাম। এর মানে, আপনার ওপরও শান্তি বর্ষিত হোক। অর্থাৎ সালামের মাধ্যমে পরস্পরের শান্তি কামনা করা হয়।

সালাম ইসলামের একটি গুরুত্বপূর্ণ নিদর্শন হওয়া সত্ত্বেও কিছু কিছু ক্ষেত্র ও পরিস্থিতিতে তা এড়িয়ে যাওয়া ভালো এবং ওইসব মুহূর্তে তার জবাব দেওয়াও জরুরি নয়। যেমন- নামাজরত ব্যক্তি, কোরআনে কারিম তিলাওয়াতকারী, আজানরত মুয়াজ্জিন, ইকামত দানকারী যখন ইকামত দেন, খুতবাদানকারী এবং শ্রবণকারী, জিকিরকারী, হাদিস পাঠদানকারী, ফিকহ নিয়ে আলোচনাকারী, বিচারকাজে ব্যস্ত বিচারক, পাঠদানে ব্যস্ত শিক্ষক, বিবস্ত্র লোক ও প্রাকৃতিক কাজে লিপ্ত ব্যক্তিকে সালাম না দেওয়া উত্তম।

আর খাওয়ার সময় সালাম দেওয়া-নেওয়ার ব্যাপারে ফতোয়া হচ্ছে খাবার গ্রহণকারী ব্যক্তির মুখের মধ্যে যদি খাবার না থাকে, তাহলে এ পরিস্থিতিতে সালাম দেওয়া ও সালামের উত্তর দেওয়া উভয়টিই জায়েজ। তবে মুখে খাবার থাকলে সালাম দেওয়া ও সালামের উত্তর দেওয়া উভয়টিই থেকে বিরত থাকা উচিৎ। এই পরিস্থিতিতে যদি কেউ সালাম দেয়, তাহলে তার উত্তর দেওয়া ওয়াজিব নয়। (দারুল উলুম দেওবন্দের ফতোয়া। প্রশ্নোত্তর নাম্বার : ২০৬৬৩)।

এ প্রসঙ্গে করাচির জামিয়াতুল উলুমিল ইসলামিয়ার ফতোয়ায় বলা হয়েছে, ‘খাওয়ার সময় সালাম না দেওয়া উচিৎ। এটি সুন্নত নয়। এরপরও যদি কেউ সালাম দিয়ে দেয়, তাহলে তার উত্তর দেওয়া ওয়াজিব নয়। তবে কেউ যদি এই পরিস্থিতিতেও সালামের উত্তর দেয় কিংবা নিজেই সালাম দেয়, তাহলেও কোনও সমস্যা নেই।’ (প্রশ্নোত্তর নাম্বার : ১৪৪০০৪২০০৫২৪)

ইসলামে যেভাবে সালাম এলো?
পৃথিবীর প্রথম মানব ও নবী হজরত আদম (আ.)-এর সময় থেকেই সালামের প্রচলন শুরু হয়। এ প্রসঙ্গে বিখ্যাত সাহাবি হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত একটি হাদিস রয়েছে। সেখানে আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, আল্লাহতায়ালা হজরত আদম (আ.)–কে সৃষ্টি করে বলেন, যাও ফেরেশতাদের সালাম দাও এবং তারা তোমার সালামের কী উত্তর দেয়, মন দিয়ে শোনো। এটিই হবে তোমার এবং তোমার সন্তানদের সালাম। সে অনুযায়ী হজরত আদম (আ.) গিয়ে ফেরেশতাদের বলেন, ‘আসসালামু আলাইকুম’। ফেরেশতারা উত্তরে বলেন, ‘আসসালামু আলাইকা ওয়া রহমাতুল্লাহ’। (মিশকাত: ৪৬২৮)। লেখক: গণমাধ্যমকর্মী; শিক্ষক, মারকাযুদ দিরাসাহ আল ইসলামিয়্যাহ, ঢাকা।

স্যোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ads




© All rights reserved © 2021 ajkertanore.com
Developed by- .:: SHUMANBD ::.