শনিবর, ২৫ মে ২০২৪, সময় : ০৪:৩১ am

সংবাদ শিরোনাম ::
বাগমারায় নিখোঁজের ১৫ দিনেও সন্ধান মিলেনি গৃহবধূ শাবানার তানোরে পল্লীবিদ্যুতের মিটার গোপণে স্থানান্তর, থানায় মামলা বাংলাদেশি কমিউনিটি এবার কি মন্ত্রী পাচ্ছে ব্রিটেনে? পোস্ট অফিসে জমানো টাকার হদিস নেই, নারীর আত্মহত্যার চেষ্টা কাঠগড়ায় অঝোরে কাঁদলেন শিলাস্তি, ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর বিএনপি আন্দোলনের বিষয়ে এখনও ভুগছে সিদ্ধান্তহীনতায় আজিম এমপির খণ্ডিত লাশ ব্রিফকেসে নিয়ে বের হন শিমুল ভূঁইয়া এমপি আজীমকে খুনের আগেই লাশ গুমের পরিকল্পনা করা হয় শরিকদের অবমূল্যায়নের অভিযোগ, সান্ত্বনা জোটনেত্রী শেখ হাসিনার দোষে দোষ খোঁজে, আলোতে খোঁজে ভালো! রাজু আহমেদ সাবেক আইজিপি বেনজীরের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি হত্যাকাণ্ডে জড়িত কে এই শিলাস্তি রহমান বাগমারায় ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হল অবৈধ পুকুরখনন নায়িকা নিপুণের বিরুদ্ধে ৬৪ জেলায় মামলা প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে এমপি আনারকে কলকাতায় হত্যা : শেরেবাংলা থানায় মেয়ের মামলা আবারও ডিসি-ইউএনওদের জন্য কেনা হচ্ছে ২৬১ বিলাসবহুল গাড়ি রাজশাহীতে অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার ‘গণমাধ্যম বনাম সংবাদ মাধ্যম নতুন সুযোগ’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ ও নিম্নচাপে ঘূর্ণিঝড়ের আভাস : আবহাওয়া অফিস বাগমারায় চেয়ারম্যান ও ভাইস-চেয়ারম্যানপদে নির্বাচিত হলেন যারা
পাঁচ বছরে ২৬ হাজার ৬৯৫টি ধর্ষণ মামলা

পাঁচ বছরে ২৬ হাজার ৬৯৫টি ধর্ষণ মামলা

অনলাইন ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন থানায় গত পাঁচ বছরে ২৬ হাজার ৬৯৫টি ধর্ষণের মামলা হয়েছে। ২০১৬ থেকে ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত থানায় ধর্ষণ মামলা দায়েরের সংখ্যা প্রতি বছরই বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি মামলা দায়ের হয়েছে গত দুই বছরে।

বুধবার হাইকোর্টে আইন ও সালিক কেন্দ্রের করা একটি রিটের জবাবে বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে এই প্রতিবেদন উপস্থাপিত হয়। রাষ্ট্রপক্ষের আরজির পরিপ্রেক্ষিতে শুনানি নিয়ে আদালত আগামী ২৩ মে পরবর্তী আদেশের জন্য তারিখ রেখেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৬ সালে দায়ের হওয়া মামলার সংখ্যা চার হাজার ৩৩১টি। ২০১৭ সালে চার হাজার ৬৮৩টি। ২০১৮ সালে হয় চার হাজার ৬৯৫টি মামলা। ২০১৯ সালে ছয় হাজার ৭৬৬টি মামলা করা হয়। ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত ধর্ষণের অভিযোগে ছয় হাজার ২২০টি মামলা হয়েছে। সব মিলিয়ে গত পাঁচ বছরে থানায় দায়ের হওয়া ধর্ষণের মামলা সংখ্যা ২৬ হাজার ৬৯৫টি।

ধর্ষণের মতো শাস্তিযোগ্য অপরাধের ক্ষেত্রে মধ্যস্থতা, সালিস বা মীমাংসা রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে এবং ইতিপূর্বে এ বিষয়ে দেয়া তিনটি রায়ের নির্দেশনা বাস্তবায়ন চেয়ে গত বছরের ১৯ অক্টোবর আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) পক্ষে একটি রিট করা হয়। রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত ২১ অক্টোবর হাইকোর্ট রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন।

সেদিন হাইকোর্ট ধর্ষণের ঘটনায় মধ্যস্থতা, সালিস বা মীমাংসা রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে ধর্ষণের ঘটনায় গত পাঁচ বছরে সারাদেশের থানা, আদালত ও ট্রাইব্যুনালে কতগুলো মামলা হয়েছে, তা জানিয়ে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেয়া হয়। চার মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। সে অনুসারে পুলিশের মহাপরিদশক (আইজিপি) ও সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের পক্ষে রাষ্ট্রপক্ষ প্রতিবেদন দাখিল করে। অনলাইন. আজকের তানোর

স্যোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ads




© All rights reserved © 2021 ajkertanore.com
Developed by- .:: SHUMANBD ::.